February 22, 2024, 7:10 am
ব্রেকিং নিউজ

আসিফ মাহতাব প্রসঙ্গে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাল ব্র্যাক

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম Monday, January 29, 2024
  • 26 দেখা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক;
নতুন শিক্ষাক্রমের আলোকে সপ্তম শ্রেণির ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বইয়ের একটি অধ্যায়ে হিজড়া জনগোষ্ঠী সম্পর্কে জনসচেতনতামূলক একটি পাঠ রয়েছে। এ নিয়ে বিতর্ক চলছে। বিষয়টি নতুন করে সামনে আসে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির সদ্য সাবেক একজন খণ্ডকালীন শিক্ষক একটি অনুষ্ঠানে ওই বইয়ের পাতা ছিঁড়ে ফেলার পর। ওই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

ওই ঘটনার ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিল, আসিফ মাহতাব ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন। বর্তমানে তার সঙ্গে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির কোনো চুক্তি নেই।

এ নিয়ে আলোচনার মধ্যে ঘটনাটি নিয়ে আজ নতুন বিবৃতি দিয়েছে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি। বিবৃতিতে বলা হয়, সব উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি সব মত ও আদর্শের জন্য সহনশীলতা ও সম্মানের ভিত্তিতে গঠনমূলক আলোচনা, বিতর্ক এবং পারস্পরিক মতবিনিময়ে বিশ্বাস করে। কিন্তু ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে জাতীয় সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি সম্পূর্ণরূপে অগ্রহণযোগ্য আচরণ, যা ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি সমর্থন করে না। সাম্প্রতিক সময়ে আসিফ মাহতাব বাংলাদেশ সরকারের প্রকাশিত সপ্তম শ্রেণির পাঠ্যবইয়ের পৃষ্ঠা ছিঁড়ে এবং পাবলিক ফোরামে অন্যদের একই কাজ করতে বলার ঘটনাটি একটি ধ্বংসাত্মক কাজ বলে মনে করে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি। তারা এ ধরনের অশিক্ষকসুলভ আচরণকে কোনোভাবেই সমর্থন করে না।

এ কারণে ব্যাক ইউনিভার্সিটি ২০২৪ সালের ‘স্প্রিং সেমিস্টারের’ জন্য আসিফ মাহতাবকে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে নতুন চুক্তি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে ইউনিভার্সিটি আসিফ মাহতাবকে এই সেমিস্টারের প্রস্তুতিমূলক কাজে তার সময় ও প্রচেষ্টার জন্য পারিশ্রমিক দেবে।

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...
themesba-lates1749691102