October 4, 2022, 3:27 am

বেঙ্গল টাইমস ইপেপার

ব্রেকিং নিউজ
সাংবাদিক তোয়াব খানের দাফন আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার পাচ্ছে ৪৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান আইজিপির দায়িত্ব নিলেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন ৮ দিন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সম্প্রচারে বিঘ্ন ঘটতে পারে মোহাম্মদপুরে তিনটি ১৪ তলা ভবন নির্মাণ করবে সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন আজ বদলি করা হলো ইউএনও মেহরুবাকে জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান আ.লীগের ২৭ প্রার্থী পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি : ৫০ জনের মরদেহ উদ্ধার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবি ৯ অক্টোবর মৃত বেড়ে ৪৭, করতোয়ার তীরে মরদেহের অপেক্ষায় স্বজনরা পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি : মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৩ সাফজয়ী নারী ফুটবল দলকে ১ কোটি টাকা দেবে সেনাবাহিনী নারী ফুটবলারদের আর্থিক পুরস্কার ও বাড়িঘর দেওয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নতুন আইজিপি আবদুল্লাহ আল মামুন, র‌্যাবপ্রধান এম খুরশীদ হোসেন ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে বাফুফে ভবনে সাবিনারা রূপনাকে বাড়ি করে দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর হিমালয় জয় করে দেশে ফিরলেন সাবিনারা, উষ্ণ সংবর্ধনা বঙ্গোপসাগরে আবার লঘুচাপ, বন্দরে ৩ নাম্বার সতর্ক সংকেত সাবিনাদের শিরোপা জয়ে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

ক্ষণিকা হতে যাচ্ছে ইতিহাস !

রিপোর্টারের নাম:
  • আপডেট টাইম Tuesday, August 30, 2022
  • 33 দেখা হয়েছে

জাহিদ আহমেদ লিটন:

যশোর ক্ষণিকা পিকনিক কর্ণার ইতিহাস হতে চলেছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ এখানে স্থাপন করছে যানবাহনের ওজন মাপার যন্ত্র ওয়েস্কেল। আঠাশ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রায় দশ বিঘা জমিতে এ স্থাপনা নির্মাণ করছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ঢাকার স্পেকট্রা কনস্ট্রাকশন। ক্ষণিকায় বিনোদন ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় ইতিমধ্যে মাঠে নেমেছে নাগরিক অধিকার আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ। তারা ক্ষণিকায় ওয়েস্কেল নির্মাণ না করে অন্যত্র স্থাপনের দাবিতে স্মারকলিপিসহ নানা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে।
সূত্র জানায়, গত ২০২১-২২ অর্থ বছরে সরকার দেশের সড়ক ও মহাসড়কগুলোতে যানবাহনে অতিরিক্ত মালামাল নিয়ে চলাচলরোধে কতিপয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। যাতে সড়কগুলো সুরক্ষিত থাকে। ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানে অতিরিক্ত মালামাল নিয়ে চলাচলের কারণে অল্প সময়েই সড়কগুলো ভেঙে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। দেশের সড়কগুলো ১৫ থেকে ২০ টন লোড বহন উপযোগী করে নির্মিত হয়। কিন্তু বর্তমানে ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান ৪০ থেকে ৫০ টন মালামাল বোঝাই করে চলাচল করে থাকে। এতে সড়কগুলো নির্মাণের পর দ্রুততম সময়ে নষ্ট হয়ে যায়। এরই প্রেক্ষিতে সরকার সারাদেশের মহাসড়কগুলোতে ২৮টি যানবাহনের ওজন মাপার যন্ত্র ওয়েস্কেল বসানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। যেটির একটি নির্মিত হচ্ছে যশোর-খুলনা মহাসড়কের রামনগর ক্ষণিকা পিকনিক কর্ণারে। এ জমি গত ৬ মাস আগে সড়ক ও সেতু বিভাগের সচিব সরেজমিনে পরিদর্শনে এসে নির্ধারণ করে যান। এরই প্রেক্ষিতে ক্ষণিকার সাড়ে তিন একর জমি চিহিৃত করা হয়েছে। ইতিমধ্যে এ জমি যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগ ঢাকার ওয়েস্কেলের প্রজেক্ট ডিরেক্টরের হাতে বুঝে দিয়েছেন। এতে ক্ষণিকার প্রায় অর্ধেক জমি চলে যাচ্ছে ওয়েস্কেল প্রকল্পে। আর বাকি অর্ধেকে থাকছে ২৪ বিঘা আয়তনের দীঘি ও ফাঁকা স্থান। এরই মাধ্যমে ইতিহাসের পথে ধাবিত হচ্ছে রামনগরে অবস্থিত ক্ষণিকা পিকনিক কর্ণার।
পরবর্তীতে টেন্ডারের মাধ্যমে প্রকল্পের এ কাজটি পায় ঢাকার স্পেকট্রা কনস্ট্রাকশন। প্রাথমিকভাবে এর নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ২৮ কোটি টাকা বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে ওই জমিতে থাকা শতাধিক গাছ কাটার জন্য দাগ দেয়া হয়েছে। চলতি সপ্তাহ থেকে নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান প্রস্তুতি নিয়েছে। অথচ বেনাপোল স্থলবন্দর প্রবেশ গেট ও বসুন্দিয়ার চেঙ্গুটিয়ায় দুটি ওয়েস্কেল রয়েছে। তারপরও ক্ষণিকায় ওয়েস্কেল নির্মাণকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সূত্র জানায়, যশোর রামনগর পিকনিক কর্ণারটি ১৯৬২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্ত্বাবধানে ক্ষণিকায় মোট জমির পরিমাণ ২৫ একর, অর্থাৎ ৭৫ বিঘা। এখানে আট একর জমিতে একটি দীঘি রয়েছে। আর ওয়াকওয়ে রয়েছে ১২৪০ মিটার। অসংখ্য গাছপালা ও টিলার ন্যায় উচু নিচু জমিতে অপরূপ সৌন্দর্য মন্ডিত এ পিকনিক স্পটটি। যশোরসহ বিভিন্ন এলাকার বিনোদন পিপাসু মানুষ এখানে প্রতিদিন ভিড় জমায়। এছাড়া গাছপালায় বিচরণ করে অসংখ্য পাখি ও দীঘিতে ঘুরে বেড়ায় পানকৌড়ি এবং দেখা মেলে হাঁসপাখিরও।
এদিকে, ক্ষণিকায় বিনোদন ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় ইতিমধ্যে মাঠে নেমেছে নাগরিক অধিকার আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ। তারা ওয়েস্কেল অন্যত্র নির্মাণ করার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদানসহ নানা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে। সর্বশেষ ২০২১ সালের ১৫ ডিসেম্বর সংগঠনটি জেলা প্রশাসক এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করে। এতে তারা বিনোদন কেন্দ্র ক্ষণিকায় ওয়েস্কেল নির্মাণ না করে অন্যত্র স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন। যাতে বিনোদন কেন্দ্রে মানুষ যেতে পারে ও পাখি, পানকৌড়ির অবাধ বিচরণ এবং জীব বৈচিত্র স্বভাবিক থাকে। এ লক্ষ্যে মঙ্গলবার সকালে নেতৃবৃন্দ যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে সাক্ষাৎ করে এ বিষয়ে প্রতিবাদ জানান। একইসাথে নির্মাণ কাজ বন্ধেরও দাবি জানান তারা।
বিষয়টি নিয়ে যশোর নাগরিক অধিকার আন্দোলনের সমন্বয়ক মাসুদুজ্জামান মিঠু বলেন, ক্ষণিকার জমি কুক্ষিগত করার জন্য ওয়েস্কেল বসানো হচ্ছে। কিন্তু এ কাজ তারা বৃহত্তর আন্দোলনের মাধ্যমে প্রতিহত করবেন। প্রয়োজনে ক্ষতিপূরণসহ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
এ ব্যাপারে যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ বলেন, প্রকল্পটি সরাসরি ঢাকা থেকে পরিচালিত হচ্ছে। সড়ক ও সেতু বিভাগের সচিব ক্ষণিকা পরিদর্শনের পর তারা শুধুমাত্র জমি হস্তান্তরের দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া সবকিছু তদারকি করছেন প্রকল্প পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন। তিনিই সকল বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন।
এ বিষয়ে কয়েকবার প্রকল্প পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুনের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলেও তার সাথে সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি। সূত্র-গ্রামের কাগজ

 

 

শেয়ার করুন
এই ধরনের আরও খবর...
themesba-lates1749691102